“অপারেশন ক্লিন হার্ট” বিএনপির বিচারবহিঃভূত হত্যার এক কালো অধ্যায়

বিএনপি-জামায়াত জোট সরকার ক্ষমতায় আসার পর ২০০২ সালের ১৬ অক্টোবর থেকে ২০০৩ সালের ৯ জানুয়ারি পর্যন্ত ‘অপারেশন ক্লিন হার্ট’ নামে যৌথ বাহিনীর ওই অভিযান চলে।

প্রায় চার মাসের ওই অভিযানে অগণিত মানুষকে গ্রেপ্তার করা হয় এবং অর্ধশতাধিক মানুষের মৃত্যু হয় বলে গণমাধ্যমের তথ্য, যারা সবাই হৃদেরাগে মারা গিয়েছিলেন বলে সে সময় যৌথ বাহিনীর পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছিল।
ওই অভিযানের কার্যক্রমকে দায়মুক্তি দিয়ে ২০০৩ সালের ২৪ ফেব্রুয়ারি ‘যৌথ অভিযান দায়মুক্তি আইন, ২০০৩’ করা হয়।
দায়মুক্তি আইনে বলা হয়, অভিযানে ক্ষতিগ্রস্ত কেউ কোনো আদালতে প্রতিকার চাইতে পারবেন না। কারও বিরুদ্ধে মামলা বা বিচার প্রার্থনা করা যাবে না, যা এটা সংবিধানের মৌলিক অধিকারের ধারণার সম্পূর্ণ পরিপন্থি।

 

নির্যাতিত হবে, খুন হবে কিন্তু প্রতিকার চাওয়া যাবে না—এর চেয়ে কালো ও খারাপ আইন হতে পারে না। বিচারবহির্ভূত যে কোনো হত্যাকাণ্ড আইনের শাসনের পরিপন্থি।

Leave a Reply